1. arkobd1@gmail.com : arkobd :
  2. dharmobodi88@gmail.com : dharmobodi :

শিরোনামঃ

পোশাকশ্রমিকের মজুরি ১০ জুন, বোনাস ১৪ জুনে

  • আপডেটের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২৯ মে, ২০১৮
  • ৩৯ বার পঠিত

তৈরি পোশাকসহ অন্যান্য শিল্প-কারখানার শ্রমিকদের মে মাসের মজুরি আগামী ১০ জুনের মধ্যে এবং ঈদ বোনাস ১৪ জুনের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে।

শিল্প খাতের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা ও অসন্তোষ নিরসনে গঠিত ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট কোর কমিটির ৩৬তম বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। শ্রম প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হকের সভাপতিত্বে আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভা শেষে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন। তিনি বলেন, শিল্প-কারখানার শ্রমিকেরা যাতে ভালোভাবে পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদ্‌যাপন করতে পারেন, সে জন্য মালিক, শ্রমিক ও সরকারের সমন্বয়ে ত্রিপক্ষীয় কমিটির সভা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী, মে মাসের মজুরি পরবর্তী মাসের সাত কর্মদিবসের মধ্যে দেওয়ার কথা। মালিকেরা সেটি দেন। তবে অতিরিক্ত সতর্কতার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, ১০ জুনের মধ্যে শ্রমিকের মে মাসের সম্পূর্ণ মজুরি দিতে হবে। আর ঈদ বোনাস কারখানা বন্ধ হওয়ার আগেই পরিশোধ করতে হবে।

পরে এক প্রশ্নের জবাবে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, মহাসড়কে যানজট এড়াতে একেক অঞ্চলে একেক দিন কারখানা ছুটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ছুটির আগে মালিকেরা শ্রমিকদের ঈদ বোনাস দেবেন। তবে সেটি অবশ্যই ১৪ জুনের মধ্যে হতে হবে। অর্থাৎ ১৪ জুনের মধ্যেই ঈদ বোনাস দিতে হবে।

জুন মাসের মজুরি পরিশোধের বিষয়ে মুজিবুল হক বলেন, ‘জুনের ১০-১২ তারিখ থেকে ঈদের ছুটি শুরু হয়ে যাবে। যদি কোনো কারখানা মালিকের পক্ষে সম্ভব হয় তাহলে শ্রমিকদের ৫ থেকে ১০ দিনের মজুরি দেবেন। তবে এটিকে আমরা বাধ্যতামূলক করছি না। যাঁরা পারবেন দেবেন, যাঁরা পারবেন না, তাঁরা শ্রমিকদের বুঝিয়ে বলবেন।’

শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, শ্রমিকেরা যাতে নির্বিঘ্নে গ্রামের বাড়ি যেতে পারেন, সে জন্য হাইওয়ে পুলিশ, শিল্প পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ঈদের আগে শ্রমিকদের মজুরি ও বোনাস প্রাপ্তি নিশ্চিত করার জন্য প্রত্যেক অঞ্চলে বিজিএমইএ, বিকেএমইএ এবং কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের (ডিআইএফই) পরিদর্শন দল থাকবে। কোথাও কোনো সমস্যা হলে দ্রুত সমাধান করা হবে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শ্রম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আশরাফ শামীম, তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের (ডিআইএফই) মহাপরিদর্শক মো. সামছুজ্জামান ভূঁইয়া, শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শিবনাথ রায়, শিল্প পুলিশের মহাপরিচালক আবদুস সালাম, বিকেএমইএর সহসভাপতি ফজলে শামীম এহসান, শ্রমিকনেতা সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুগ্রহ করে এই খবরটি সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর
জ্ঞানঅন্বেষণ কর্তৃক সকল অধিকার সংরক্ষিত © ২০১৯
Developed By: Future Tech BD